১০০ বছর আগের বাংলাদেশ কেমন ছিল।

 প্রাচীন ইতিহাস আমাদের সকলের মনেই একটি অন্যরকম শিহরণ ঘটায়।একটু মনে মনে ভাবুন আপনি চলে আসছেন ১০০ বছর আগে।

১০০ বছর আগের বাংলাদেশ কেমন ছিল


১০০ বছর আগের মানুষের জীবন যাপন ছিল খুব সহজ সরল।তারা দিনে যা রোজগার করত তা দিয়েই তারা দিন আনত দিন খেত।আবার পরদিন আবার কাজে যেত।তখন কার সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় পেশা ছিল সয়াবিন তেল বিক্রি করা।বলা যেত যে যারা এই পেশার সাথে লিপ্ত ছিল তাদের অন্যদের তুলনায় একটু বেশি ধনি মনে করা হতো।


১০০ বছর আগের পরিবেশ:-তখন কার সময়ে রাস্তাঘাট ছিল না।যাতায়াত ব্যবস্তা ছিল খুব কঠিন। যাতায়াতের জন্য ছিল শুধু গরু ও ঘোড়ার গাড়ি তবে খুব কম এবং তখনকার সময়ের বেশিরভাগ মানুষই ছিল গরিব। তাই কোনো বিপদে আপদে এক যায়গা থেকে অন্য যায়গায় যাওয়ার জন্য গরুর পাড়িতে যাওয়ার সামর্থ ছিল না অনেকের।তখন কার প্রকৃতি এতই সুন্দর ছিল, যে চারদিকে নানা রকমের রংবেরঙের পাখির সমাহার।খেতে বা খাল বিলে মাছে টইটুম্বুর করত।

                                                              ১০০ বছর আগের ঢাকা শহর  

১০০ বছর আগে মানুষের জীবনের কষ্ট:-তখনকার যাতায়াতের কষ্টও ছিল আরো ছিল তাদের জীবনে নানা সমস্যা।বাঘ,ডাকাত ও জীন-পরির অত্যাচার ছিল খুব বেশি।কোনো মানুষ যদি একা একা একটি নির্জন যায়গা দিয়ে হেটে যেত তখন জীব বা জীন জাতীয় জিনিষেরা খুবই বিরক্ত করত।এমনও শুনা গেছে যে জীনেরা অনেক মানুষ মেরে ফেলছে।আবার ছিল ডাকাত ও বন্য প্রাণীর ভয়।ডাকাতের ভয় গরিবদের ছিল না ছিল তখনকার সময়ের বড়লোক ও জমিদারদের।


১০০ বছর আগের বাংলাদেশ                       ১০০ বছর আগের ইতিহাস


তখনকার সময়ে লেখাপড়ার এত চলন ছিল না।প্রত্যেক বাড়ির ছেলেরা খুব সকালে ঘুম থেকে উঠে বাবার সাথে মাঠে কাজে যেত। তারপর বিকালে সকল বন্দুরা একসাথে মাঠে উাঙ্গুলি ও অন্যান্য খেলা খেলত।আগের সময়ের সময়ের সবচেয়ে বড় ভয় ছিল বিভিন্ন মহামারি।গ্রামের একটি বাড়িতে যদি কলেরা হতো তাহলে পুরো গ্রামে ছরিয়ে পড়ত।কারণ তখনকার সময়ে সঠিক চিকিংসা ছিল না।

বাংলাদেশের প্রাচীন ইতিহাস  

বলা যেতে পারে যে আগেকার মানুষই প্রকৃত মানুষ কারণ তারা বিভিন্ন প্রতিকুল পরিবেশে টিকে রয়েছিল।ত নিজেকে একটু ১০০ বছর অতিতের পরিবেশে ভেবে দেখুন ত কেমন লাগে।

Post a Comment

1 Comments

Emoji
(y)
:)
:(
hihi
:-)
:D
=D
:-d
;(
;-(
@-)
:P
:o
:>)
(o)
:p
(p)
:-s
(m)
8-)
:-t
:-b
b-(
:-#
=p~
x-)
(k)