Student অবস্থায় যেই ৫ টি কাজের অভ্যাস থাকলে জীবনে কখনো সফল হওয়া যায় না।

 ছাত্র-ছাত্রীরাই দেশের আগামী দিনের দিনের ভবিষ্যৎ। কিন্তু সব ছাত্র ছাত্রীরা জীবনে সফল হতে পারেনা। আজকে সফল না হবার পেছনের ৫ টি কারণ সেয়ার করব।

সফলতা অর্জনের উপায়

১.পর্ণোগ্রাফি

পর্ণোগ্রাফি বিশ্বের এমন একটু বড় সমস্যা যা,কেও যদি আসক্ত হয়ে পরে তাহলে সে সহজে মুক্তি পাইনা।মার্কিন বিশ্ববিদ্যালয় অ্যাসোসিয়েশন এর মতে সাধারণত সবচেয়ে বেশি পর্ণোগ্রাফিতে আসক্ত হয়ে পরে স্কুল কলেজের ছেলেমেয়েরা।পর্ণোগ্রাফির ফলে আমাদের শরীরের বিভিন্ন মানসিক সমস্যায় পড়তে হয়।অতিরিক্ত পর্ণোগ্রাফি দেখার ফলে আমাদের ব্রেইনের উপর চাপ পড়ে এবং ব্রেইনের কর্মক্ষমতা কমে যায়।এতে তারা কখনোই পড়ালেখাই মনযোগী হয়ে উঠতে পারেনা। পড়তে বসলে তাদের মাথায় বিভিন্ন খারাপ চিন্তা আসে।আবার ছেলেরা রাস্তায় কোনো মেয়েকে দেকলে তার প্রতি অনেক সময় খারাপ চিন্তা আসে যা দীর্ঘক্ষণ পর্ণোগ্রাফি দেখার ফলে হয়।মেয়েরা দীর্ঘক্ষণ পর্ণোগ্রাফি দেখার ফলে তাদের শরীরের হরমোন কমে যায়।এছাড়া আরো সমস্যায় পড়তে হয় তাদের।


২.হস্থমৈথুন/ফিঙ্গারিং :

হস্থমৈথুন এমন একটি বড় সমস্যা যা আমাদের বর্তমান ও ভবিষ্যৎ জীবন দুটোরই সমান ক্ষতি করে থাকে।আমাদের দেশের শতকরা ৭০% ছেলে মেয়ে এ কাজের সাথে জরিত।যারা পর্ণগ্রাফি আসক্ত তারা নিওমিত হস্থমৈথুন করে থাকে।আর হস্থমৈথুন এর ফলে ছেলেদের শরীরের অনেক সমস্যা হয়। হস্থমৈথুন এর সময় মস্তিষ্কের সেরিবেলামে প্রচন্ড চাপ পড়ে এতে আমাদের শরীর উত্তেজিত হয়ে পড়ে ও মাথা ব্যাথা সহ অন্যন্য শারীরিক সমস্যা দেখা দেয়। আবার এর ফলে আমাদের পড়ায় মন বসেনা এবং ভবিষ্যৎ জীবনেও ক্ষতিকর প্রভাব ফলে।


৩.ধুমপান:

ধুমপানের ফলে ফুসফুসে ক্যানসার হয় এটা সকলেই জানি।এছারা আমাদের শরীরে আরো ৯৯ টি রোগ হবার সম্ভাবনা থাকে।বর্তমান সময়ে স্কুল-কলেজের ছেলেরাও ধুমপানে আসক্ত হয়ে পড়ছে।প্রথমে তারা ধুমপান দিয়ে শুরু করলেও অনেকেই পড়ে বিভিন্ন নেশাই ও আসক্ত হয়ে যায়।



৪.প্রেম- ভালোবাসা :

প্রত্যেক মানুষের জীবনেই প্রেম ভালোবাসা থাকে।কেও প্রকাশ করে আর কেও প্রকাশ করেনা।যারা স্কুল জীবনে প্রেম ভালাবাসা করে তারা জীবনে কখনো সফল হতে পারেনা। স্কুল-কলেজ জীবনের প্রেমের  ফলে পড়া-লেখায় ক্ষতি হয়।সারাদিন প্রিয় মানুষটার কথা চিন্তা থাকে তাদের মাথায়।এছাড়া আরো অনেক চিন্তা থাকে প্রিয় মানুষটাকে নিয়ে।


উক্তি : পৃথিবীর সবচেয়ে ধনি ব্যাক্তি বিল গেটস বলেছেন যে: student অবস্থায় মেয়ের পেছনে না দৌড়ে লেখাপড়ার পেছনে দৌড়াও সময় হলে মেয়ের মা তুমার পেছেনে দৌড়াবে।

উক্তি :Sir Walter Raleigh বলেছেন যে :প্রত্যেকটি কাজের যেমন একটি নির্দিষ্ট সময় আছে তেমনি প্রেম -ভালোবাসারও একটি নির্দিষ্ট সময় আছে।যখন তুমি নিজে প্রতিষ্টিত হবে তখন মেয়ের সৌন্দর্য না সব দিক বিবেচনা করে সম্পর্ক কর এবং তাকে তুমার জীবন সঙ্গী বানাও।এতে তুমার ভবিষ্যৎ জীবন আরো সুখি হবে।

অতএব স্কুল কলেজে প্রেম ভালবাসা নয়। যখন তুমি নিজে প্রতিষ্টিত হবে তারপর।


৫.লক্ষ এবং সঠিক বন্ধুত্ব: 

গন্তব্য ছাড়া যেমন নৌকা চলতে পারেনা তেমনি লক্ষ ছাড়া জীবনও চলতে পাড়েনা।তাই স্কুল জীবনই নিজের লক্ষ নির্ধারণ করতে হবে। এবং তা বাস্তবায়নে সঠিক পদক্ষেপ নিতে হব।

সঠিক বন্ধত্ব:

উক্তি : ডা.এপিজে আব্দুল কালাম বলেন একটি বই ১০০ টি বন্ধুর সমান...কিন্ত একজন ভালো বন্ধু পরো লাইব্রেরির সমান।

বাস্তব কথা তুমি যদি ভালো বন্ধদের সাথে চল তাহলে তুমি তাদের মতো হবে আর যদি খারাপ বন্ধুদের সাথে চল তাহলে তুমি তাদের মতো হবে।স্কুল জীবনে ভালো-খারাপ দুই রকমের বন্দুই আছে।তাই খারাপ বন্ধুত্ব ত্যাগ করে ভালো বন্ধুদের সাথে চলতে হবে।


সব মা-বাবারাই চাই যে তাদের সন্তান ভালো লেখাপড়া করে সমাজে প্রতিষ্টিত হোক।কিন্ত আপনি কি কখনো আপনার সন্তানকে প্রশ্ন করে দেখেছেন তারা কি এসবের সাথে জরিত না কি?


প্রশ্ন করুন আপনার বিবেক কে।এগুলো লজ্বার কোনো বিষয় নয়।তাই আজকেই আপনার সন্তাকে প্রশ্ন করোন এবং এটি সেয়ার করে সকলকে দেখার সুযোগ করে দিন।ধন্যবাদ

ধন্যবাদ

Keywords. 

ছাত্রদের উদ্দেশ্যে উপদেশ,

ছাত্র জীবনে সফল হওয়ার উপায়,

ছাত্রজীবনে প্রেম,
ছাত্র সমাজের দায়িত্ব ও কর্তব্য রচনা,
জীবনে উন্নতি করার উপায়,
সফলতা অর্জনের উপায়,
কি করব জীবনে,
জীবনে উন্নতি করার উপায়,

Post a Comment

1 Comments

Emoji
(y)
:)
:(
hihi
:-)
:D
=D
:-d
;(
;-(
@-)
:P
:o
:>)
(o)
:p
(p)
:-s
(m)
8-)
:-t
:-b
b-(
:-#
=p~
x-)
(k)