২০২২ সালে ফেসবুক আইডি নিরাপদ রাখার সেরা কিছু উপায়

হেলো বন্ধুরা, সকলেই কেমন আছেন? আাসাকরি সকলেই ভালো আছেন। আমরা সকলেই ফেসবুক ব্যবহার করে থাকি। এটি আমাদের দৈনন্দিন জীবনের রুটিন হয়ে গেছে। আচ্ছা আপনার ফেসবুক আইডি কি নিরাপদ? আমি জানি এই বিষয়ে আপনিও নিশ্চিত না। আপনার ফেসবুক আইডিতে বা আপনার মেসেঞ্জারে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ছবি, ভিডিও বা অনেক তথ্য রয়েছে। আর এই ফেসবুক আইডি যদি কখনো হ্যাক হয়ে যায় তাহলে আপনি অনেক বড় ক্ষতির সম্মুখীন হবেন।

ত আজকের আর্টিকেলটি পড়ার মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন, ২০২২ সালের সকল আপডেট অনুযায়ী আপনার ফেসবুক আইডি নিরাপদ রাখার সকল উপায় সমূহ।

ফেসবুক আইডি নিরাপদ রাখার উপায়

আজকরে আর্টিকেলে আমরা মূলত দুটি বিষয় নিয়ে আলোচনা করব:

1: কিভাবে হ্যাকাররা আমাদের আইডি হ্যাক করে নিয়ে যায়।

2: কিভাবে হ্যাকারদের কাছ থেকে আমাদের আইডি নিরাপদ রাখতে পারি।

হ্যকাররা যেভাবে ফেসবুক আইডি হ্যাক করে?

হ্যকাররা বেশ কিছু ট্রিকসের মাধ্যমে আমাদের আইডি হ্যাক করে। যেমন:

• Phishing Link: ফেসবুক আইডি হ্যাক করার ক্ষেত্রে হ্যাকারা যেই পদ্বতিটি সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করে থাকে তার নাম হচ্ছে Phishing Link। 

বিস্তারিতঃ অনেক সময় আমরা অনলাইনে লক্ষ্য করে থাকি বিভিন্ন প্রোডাক্টের মূল্য থেকে অনেক কম দামে বিক্রি করা হচ্ছে বা আপনার ফ্রেন্ডলিস্টের কোনো বন্ধু আপনাকে মেসেজ দিয়ে বলল যে, এই সাইটে শুধু  একাওন্ট করলেই পাবেন ১০০০ টাকা। অথবা বিভিন্ন লোভনীয় অফার আপনার সামনে সো করাল। 

তারপর আমরা সেই সাইটে প্রবেশ করে লগিন করার  অপশন হিসেবে ফেসবুককে বাঁছাই করে নেই। তারপর ফেসবুক দিয়ে লগিন করলেই হ্যাকারদের কাছে আমাদের আইডির নাম্বার পাসওয়ার্ড সহ যাবতীয় ডিটেইলস চলে যায়।

বাস্তবে আমরা ফেসবুকের অফিসিয়াল সাইটে লগিন করি না। আমরা ফেসবুকের মতো হুবহু দেখতে আরেকটি পেইজে লগিন করি যা হচ্ছে হ্যাকরদের তৈরি phishing link। আবার লগিন করার সময় উপরে সাইটের লিংকটি ফেসবুকের কিনা তাও দেখি না।

ত এভাবে হ্যাকাররা আমাদের আইডি পাসওয়ার্ড সহ যাবতীয় ডিটেইলস সংগ্রহ করে ব্লাক মার্কেটে চড়া দামে বিক্রি করে ফেলে বা অনেক ইলিগেল সাইট বা পেইজে ব্যবহার করে।

তাই কখনো কোনো সাইট বা অন্য পেজে আপনার ফেসবুক আইডি লগিন করার পূর্বে দেখে নিবেন এটা ফেসবুকেরই লগিন পেজ কিনা। মানে ভালোভাবে ফেসবুকের URL চ্যাক করে তারপর লগিন করবেন। phishing link এর মাধ্যমে হ্যাকাররা অন্য সোসাল মিডিয়া ও হ্যাক করে থাকে। যেমন: ইন্সটাগ্রাম, টুইটার, ইত্যাদি। ত কোনো সাইটে ফেসবুক বা অন্য সোসাল মিডিয়া দিয়ে লগিন করার পূর্বে URL চ্যাক করে নিলে কখনোই আপনি হ্যাকরদের phishing link এর কবলে পড়বেন না। 

• Malware: আপনারা অনেক সময় কোনো মুভি ইউটিউবে বা কোনো সফটওয়্যার প্লেস্টোরে না পেলে সেটি ডাওনলোড করার জন্য গুগলে গিয়ে সার্চ করে থাকি। আর কিছু দুষ্ট হ্যাকার রয়েছে যারা কিনা বিভিন্ন ধরনের ডাওনলোডিং সাইট তৈরি করে রেখেছে এবং সেটি এসইও করে গুগলে রেংকেও নিয়ে আসে। তারপর আমরা তাদের সাইট থেকে অ্যাপ ডাওলোড করি। বাস্তবে আমরা ডাওনলোড করি তাদের তৈরি Malware। আর এই Malware দ্বারা তারা আমাদের পুরো ডিভাইসটি তাদের কন্ট্রোলে নিয়ে আসতে পারে। যার ফলে তারা আমাদের ডিভাইসে থাকা যাবতীয় সকল তথ্য, সোসাল মিডিয়া ডিটেইলস ইত্যাদি তাদের হাতে চলে যায়। 

তাই ইন্টারনেটের কোনো সাইট থেকে মুভি, অ্যাপ বা কোনো কিছু ডাওনলোড করার পূর্বে অবস্যই যাচাই-বাছাই করে নিবেন সেই সাইটটি বিশ্বাসযোগ্য কিনা।

• App Install: আমরা আমাদের নিত্যনতুন প্রয়োজনের জন্য ইন্টারনেট থেকে বিভিন্ন ধরনের অ্যাপস ইনস্টল করে থাকি। তারপর সে সকল অ্যপস যকগুলো পারমিশন চাই সকল পারলিশন Allow দিয়ে থাকি। আর এই সুযোগটি কাজে লাগিয়ে হ্যাকরা আমাদের ডিভাইস টি তাদের কন্ট্রোলে নিয়ে আসতে পারে। অথবা সেই অ্যাপে যদি ফেসবুক দিয়ে লগিন দেই তাহলে আইডি হ্যাক হ্যাক সহ আরো নানা ক্ষতি করতে পারে। তাই প্লেস্টোরের বাহির থেকে কোনো অ্যাপস ইনস্টল করার পর সবকিছুতে allow না দিয়ে তাদের পলিসিগুলো পরে নিবেন। আবার google play protect এবং phone protect চালু করে চ্যাক করে নিবেন।

ফেসবুক আইডি নিরাপদ রাখার উপায়

ফেসবুক আইডি নিরাপদ রাখার জন্য আমরা কিছু নিয়ম অনুসরণ করতে পারি। যেমন:

• Two step verification : Two Step verification অপশন যদি আপনার ফেসবুকে চালু থাকে তাহলে, আপনার কোনো বন্ধুও যদি আপনার ফেসবুক আইডির নাম্বার, পাসওার্ড যানে তাহলেও সে আপনার আইডি লগিন করতে পারবে না। যখনি লগিন করতে যাবে তখনি আপনার ফোন নাম্বারে ভেরিফিকেশন কোড যাবে।

যেভাবে ফেসবুক টু স্টেপ অপশন চালু করবেন:

ফেসবুক আইডি নিরাপদ রাখার উপায়

ফেসবুক আইডি নিরাপদ রাখার উপায়

ফেসবুক আইডি নিরাপদ রাখার উপায়

ফেসবুক আইডি নিরাপদ রাখার উপায়

ফেসবুক আইডি নিরাপদ রাখার উপায়
• প্রথমে আপনার ফেসবুক অ্যাপটি অপেন করে সেটিংস আপশনে চলে যাবেন।

• তারপর Password and Security অপশনটি অপেন করবেন।

• তারপর Use two - factor authentication অপশনটিতে ক্লিক করবেন।

• তারপর Text Massage (SMS) লিখায় ক্লিক করে আপনার ফোন নাম্বার যুক্ত করলেই Two Step verification অপশন চালু হয়ে যাবে।

• Strong Password : ফেসবুক আইডি তৈরি করার সময় Strong Password ব্যবহার করবেন। অনেকেই দেখা যায় ফেসবুক আইডি তেরি করার সময় ( 12345578 বা 22334455) এরকম দুর্বল পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে। দুর্বল পাসওয়ার্ডের আইডিগুলো হ্যাক করা হ্যাকারদের কাছে অনেক সহজ বিষয়। তাই সমসময় Strong password বয়বহার করে আইডি তৈরি করবেন। 

Strong Password এর উদাহরণ : ( MsBlig@#32734 )

ত বন্ধুারা এই পদ্ধতিগুলো অবলম্বন করার মাধ্যমে  আপনি আপনার ফেসবুক আইডি নিরাপদ রাখতে পারেন।

Post a Comment

0 Comments