স্লো মোবাইল ফাস্ট করার সেরা ৮ টি আপডেট উপায়। ফোন স্লো হলে করণীয়

হেলো বন্ধুরা, সকলেই কেমন আছেন? আসাকরি আপনারা সকলেই ভালো আছেন। আমরা যখন মার্কেট থেকে একটি নতুন ফোন ক্রয় করি তখন সে ফোনটি অনেক ফাস্ট থাকে। তারপর ফোনটি কয়েক মাস ব্যবহার করার পর আস্তে আস্তে স্লো হতে থাকে। আর স্লো ফোন ব্যবহার করা সকলের জন্যই বিরক্তিকর। ত আপনি চাইলে আপনার পুরনো ফোনটিকে নতুন ফোনের মতো ফাস্ট করতে পারবেন কয়েকটি ট্রিক অবলম্বন করার মাধ্যমে। 

স্লো ফোন ফাস্ট করার উপায়

স্লো ফোন ফাস্ট করার আপডেট উপায় 

1: Run App Background : সারাদিন ই আমাদের ফোনে অনেক ধরনের অ্যাপ ব্যবহার করে থাকি। আর সেই অ্যাপগুলো ব্যবহার করার পর আমরা অনেকেই হোম বাটনে ক্লিক করে চলে আসি। যার ফলে সেই সকল অ্যাপগুলো আমাদের ফোনের ব্যাকগ্রাওন্ডে চলতে থাকে এবং Ram এর উপর অনেক চাপ ফেলে। এতে করে আমরা যদি নতুন কোনো কাজ করতে চাই তাহলে ফোনটা স্লো কাজ করবে। তাই সবসময় চেস্টা করবেন কাজ শেষ করে ফোনের Ram ক্লিন রাখতে। আর ফোনের Ram ক্লিন থাকলে ফোন ফাস্ট কাজ করবে।

2: অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ: অনেক সময় আমরা বিভিন্ন প্রয়োজনে প্লেস্টোর থেকে অনেক অ্যাপ ইনস্টল করে থাকি৷ কিন্তু প্রয়োজন শেষ হবার পর সেই অ্যাপগুলো আমাদের ফোনে রেখে দেয়। আর সেই অ্যাপগুলো আমাদের ফোনের ইন্টারনাল স্টোরেজের অনেক জায়গা দখল করে ফেলে। আবার ফোনের প্রসেসরের উপর ও চাপ ফেলে। যার ফলে ফোন স্লো কাজ করে। তাই কাজ শেষে অপ্রয়োজনীয় অ্যাপগুলো ফোনে না রেখে প্রয়োজন শেষে আনইন্সটল করে দিন। এতে ফোন ফাস্ট কাজ করবে।

3: ফোন উইজেট : আমাদের প্রত্যেকের ফোনে উইজেট রয়েছে। উইজেট হচ্ছে ফোনের নোটিফিকেশন বারে নোটিফিকেশন আসা। তবে সেগুলো অ্যাপের নয়।যেমন: আবহাওয়া, খেলাধুলা, তাপমাত্রা ইত্যাদি। ত এগুলো বারবার আমাদের ফোনের সার্ভারের সাথে কান্টেক্ট হয়। যার ফলে ফোনের প্রসেসরকে বিজি রাখে। এতে ফোন অনেক স্লো কাজ করে। আর যারা মোবাইল ডাটা ব্যবহার করে ইন্টারনেট চালায়, তাদের ডাটাও খরচ হয়। তাই ফোনের সকল উইজেট গুলো রিমোভ করে দিন। এতে করে ফোন আগের থেকে ফাস্ট কাজ করবে।

4: ভারি অ্যাপ : বর্তমানে আমাদের ফোনের সবচেয়ে ব্যবহৃত অ্যপগুলো হলো : ফেসবুক, ইউটিউব, মেসেঞ্জার, টিকটক ইত্যাদি। আর এসকল অ্যাপগুলো কিন্তু অনেক ভারি। ত আপনার ফোনের Ram যদি 2 বা 3 জিবি হয়ে থাকে তাহলে এসকল অ্যাপ অতিরিক্ত সময় ব্যবহার করার ফলে আপনার ফোন অনেক স্লো কাজ করবে। তাই আপনি এ সকল অ্যাপের লাইট ভার্সন ব্যবহার করতে পারেন। যেমন : ফেসবুক, মেসেঞ্জার, টিকটক এদের লাইট ভার্সন রয়েছে এবং ইউটিউব এর YouTube Go অ্যাপ রয়েছে। ত লাইট ভার্সন অ্যাপ ব্যবহার করার ফলে আপনার ফোনের প্রসেসরে বেশি চাপ ফেলবে না যার ফলে ফোন ফাস্ট কাজ করবে।

5: Wallpaper Change : দেখতে সুন্দর ও আকর্ষণীয় লাগার কারণে আমরা আমাদের ফোনে বিভিন্ন ধরনের এনিমেটেড বা গ্রাফিক্স Wallpaper ব্যবহার করে থাকি৷ যার ফলে ফোন অনেক স্লো কাজ করে। তাই চেস্টা করুন সবসময় ফোনে ডিফল্ট Wallpaper রাখার৷ এতে করে ফোন অনেক ফাস্ট কাজ করবে।

6: Phone Launcher : অনেকেই তাদের ফোনকে আকর্ষণীয় করার জন্য প্লেস্টোর থেকে ডাও'ন'লোড করে বিভিন্ন ধরনের Launcher ব্যবহার করে। প্রথম প্রথম সবকিছু ঠিক থাকলেও পরবর্তী সময়ে সেই Launcher টি ফোনের প্রসেসরে অনেক চাপ ফেলে যার ফলে ফোনটি অনেক স্লো হয়ে যায়। তাই ফোনকে সুন্দর দেখানের জন্য কখনোই ফোনে আজেবাজে Launcher ব্যবহার করবেন না। 

7: ডেভোলপার অপশন : এই সেটিংস টি চালু করার ফলে ফোনটি আগের থেকে ৫গুন ফাস্ট কাজ করবে।

ফোনের ডেভলপার অপশন চালু করুন:-

স্লো ফোন ফাস্ট করার উপায়

স্লো ফোন ফাস্ট করার উপায়
• ফোনের সেটিংস অপশনে চলে যান।

• তারপর About Device অপশনে ক্লিক করুন। একেক ফোনের সেটিংস একেক রকম হয়ে থাকে। ত আপনার ফোনে About Device অপশন খুঁজে না পেলে Search করে বের করুন।

• তারপর About Device অপশনে প্রবেশ করে (Build number) লেখায় ৭-৮ বার ক্লিক করলেই আপনার ফোনের ডেভোলপার অপশন চালু হয়ে যাবে।

ডেভোলপার অপশন চালু হবার পর যা করণীয়:-

স্লো ফোন ফাস্ট করার উপায়

স্লো ফোন ফাস্ট করার উপায়

স্লো ফোন ফাস্ট করার উপায়
• প্রথমে ডেভোলপার অপশনে প্রবেশ করে একটু নিচে চলে যান। 

• তারপর window animation scale, Transition animation scale, Animator duration scale লেখাগুলোতে ক্লিক করে প্রতিটি অপশনে of করে দিবেন।

এতে করে আপনার ফোন অনেক ফাস্ট কাজ করবে।

8: ফোন স্টোরেজ : আপনার ফোনের স্টোরেজ যদি ফুল থাকে তাহলে আপনি যতই সেটিংস চালু করেন না কেনো কখনোই আপনার ফোন ফাস্ট কাজ করবে না। স্লো ফোন ফাস্ট কাজ করানোর জন্য অবস্যই ফোনের স্টোরেজ খালি রাখতে হবে। তবে অনেক সময় দেখা যায় আপনার ফোনের মেমোরিতে কিছুই নেই তারপর ও আপনার ফোনের স্টোরেজ ফুল দেখাচ্ছে,  তাহলে এই আর্টিকেল টি পড়তে পারেন

ফোনে কিছুই নেই তবুও মেমোরি ফুল দেখায় - সঠিক সমাধান

ফোনের স্টোরেজ খালি থাকলে ফোন অবস্যই ফাস্ট কাজ করনে। 

ত বন্ধুরা এই ট্রিকগুলো অবলম্বন করে আপনারা আপনাদের স্লো ফোনটিকে ফাস্ট করতে পারেন। ধন্যবাদ সকলকে।

Post a Comment (0)
Previous Post Next Post