ফাইভারের এলগরিদম যেভাবে কাজ করে। নতুন অবস্থায় ফাইভারে বেশি কাজ পাওয়ার উপায়

সাইটে অন পেজ এসইও করার সর্বশেষ আপডেট নিয়ম ২০২২

হেলো বন্ধুরা, সকলেই কেমন আছেন? আসাকরি আপনারা সকলেই ভালো আছেন। ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসের মধ্যে ফাইভার অন্যতম। যারা নতুন ফ্রিল্যান্সার রয়েছে তারা ফাইভারে প্রথম গিগ খুলার সময় অনেক ভুল করে থাকেন। ত নতুন অবস্থায় ফাইভারে গিগ খুলতে ( ফাইবারে গিগ তৈরিতে যে সকল বিষয় লক্ষ্য রাখতে হবে  ) পড়ে নিতে পাড়েন।

ত আজকের আর্টিকেলে ফাইভারের এলগরিদম সম্পর্কে বেসিক আলোচনা করা হবে। আপনি যদি ফাইভারের এলগরিদম সম্পর্কে বেসিক ও ধারনা রাখেন তাহলে নতুন অবস্থায় ও ফাইভারে কাজ পেতে সমস্যা হবে না বা নতুন অবস্থায় ও বেশি কাজ পাবেন। 

ফাইভারের এলগরিদম যেভাবে কাজ করে

ফাইভারের এলগরিদম পুরোপুরি গুগল বা অন্যান্য সার্চ ইন্জিনের মতোই কাজ করে। ত চলুন জেনে নেই ফাইভারের এলগরিদম কিভাবে করে?

গুললের যেমন যেমন ২০০+ Ranking  ফেক্ট রয়েছে, তেমনি ফাইভেরর ও অসংখ্য Ranking ফেক্টর রয়েছে। যেমনঃ

• মোট অর্ডারের সংখ্যা: Gig Ranking এর সবচেয়ে বড় কারণ বলা হয় মোট অর্ডারের সংখ্যাকে। 

• ক্লিক ভিউ এর সংখ্যা: আপনার গিগে কি পরিমাণ ক্লিক পড়েছে তার উপর নির্ভর করেও গিগ Rank করে।

• কনভার্সন রেট: আপনার গিগে যদি ১০০ ক্লিক পড়ে যদি ও ৬ টা অর্ডার আসে তাহলে আপনার কনভার্সন রেট হবে ৬%। কনভার্সন রেট যত ভালো হবে গিগ Rank করার সম্ভাবনা তত বাড়বে।

• রেটিং: গিগে ভালো রেটিং থাকলে সেই গিগের প্রতি বায়ারের আকর্ষণ বেশি থাকে।

• লেভেল: ফাইভারে আপনার লেভেল যত বৃদ্ধি পাবে আপনার গিগ তত তাড়াতাড়ি Rank করবে।

• রেসপন্স টাইম: গিগ Ranking এর জন্য এটিং অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

• অন টাইম ডেলিভারি: ডেলিভারি দেবার সময়ের আগেই ডেলিভারি দিলে ফাইভার অনেক খুশি হয়।

• সেলার এক্টিভিটি: সেলারের এক্টিভিটির উপর ও ফাইভার গুরুত্ব দেয়।

• কিওয়ার্ড: সঠিক কিওয়ার্ড রিসার্চ এবং SEO করার মাধ্যমে ফাইভারে গিগ Rank করানো সম্ভব। 

• order complete: নির্দিষ্ট সময় এবং সঠিকভাবে order complete করলে আপনার গিগ তাড়াতাড়ি Rank করবে।

• আইডি ভেরিফাই: আপনার আইডি ভেরিফাই থাকলে কাজ পাবার সম্ভাবনা বেশি থাকে।

• সেলিং প্রাইস: গবেষণায় প্রমাণিত যে, ফাইভার ৫ ডলারের সেলারদের পছন্দ করে না। তাই আপনার সেলিং প্রাইস সবসময় ৫ ডলার থেকে বেশি রাখবেন।

ত বন্ধুরা এই ছিল ফাইভারের এলগরিদম সম্পর্কে বেসিক আলোচনা। পরবর্তী আর্টিকেলে ফাইভারের এলগরিদম সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করা হবে।

Post a Comment (0)
Previous Post Next Post